সোনাগাজীর গোপালগাঁওয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষনের ভিডিও ধারন, মাদরাসা যাওয়া বন্ধ

১,৩৫৮    0

সোনাগাজী উপজেলার চরমজলিশপুর ইউনিয়নের সাবেক গোপালগাঁও গ্রামে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষনের ভিডিও ধারন করেছে ওমর ফারুক নামের এক বখাটে। ধারনকৃত ভিডিওটি প্রচারের হুমকি দিয়ে নির্যাতিতার পরিবারের কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করলে বিষয়টি জানাজানি হয়। ওই বখাটের অব্যাহত হুমকির মুখে থানায় মামলা করতে সাহস করছেনা ভুক্তভোগীরা।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সাবেক চর গোপালগাঁও গ্রামের মো: মোস্তফার বখাটে ছেলে ওমর ফারুক দীর্ঘদিন একই এলাকার প্রবাসী মো: ইসমাইলের মেয়েকে মাদরাসায় আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করে আসছে। সে চরলক্ষ্মীগঞ্জ নাজেরিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী। একপর্যায়ে প্রেমের প্রস্তাব দিতে গত ২৮ জুলাই বিকালে তার বাড়ীতে যায় ফারুক। বাড়িতে কেউ না থাকায় মেয়েটিকে একা পেয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষন করে ভিডিও চিত্র ধারন করে। ঘটনাটি কাউকে না জানাতে ভিডিও প্রকাশ সহ নানা ধরনের হুমকি-ধমকি দেয়। ওইদিন রাতেই মেয়েটির মায়ের কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। লোকলজ্জার ভয়ে সে মাদরাসা যাওয়া বন্ধ করে দেয়। ঘটনাটি স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামকে জানালে সামাজিকভাবে বিষয়টি মিমাংসা করবে বলে সময়ক্ষেপন করে। গতকাল রবিবার স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হোসেনকে মেয়ের মা ঘটনাটি জানালে তিনি থানায় মামলা করার পরামর্শ দেন। এদিকে এলাকার একটি মহল ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।
সোনাগাজী মডেল থানার ডিউটি অফিসার এএসআই মিঠুন জানান, গতকাল রাত ৮টা পর্যন্ত এ ধরনের কোন অভিযোগ তারা পাননি।

এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে ওসি মো: হুমায়ুন কবীরের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

Leave A Reply